Par value কে মুখমূল্য বা নামমূল্যও বলা হয় কেন?

Par Value হলো একটি শেয়ারের মূল্য যা কোম্পানি প্রথমবার বাজারে শেয়ার বিক্রি করার সময় নির্ধারণ করে। এটিকে মুখমূল্য বা নামমূল্যও বলা হয়।

উদাহরণ:

  • যদি কোনো কোম্পানি প্রতিটি শেয়ার ৳100 মূল্যে বাজারে বিক্রি করে, তাহলে সেই শেয়ারের Par Value হবে ৳100
  • Par Value শেয়ারের বাজার মূল্যের চেয়ে কম, বেশি বা সমান হতে পারে।

Par Value এর গুরুত্ব:

  • শেয়ারের মূলধন নির্ধারণে সাহায্য করে।
  • কোম্পানির আর্থিক স্থিতিশীলতা মূল্যায়নে ব্যবহৃত হয়।
  • শেয়ারের মূল্য বিশ্লেষণে সাহায্য করে।

মাইক্রোসফট এক্সেলে Par Value:

  • এক্সেলে, Par Value সাধারণত “Par” বা “Par Value” নামক কলামে সংরক্ষণ করা হয়।
  • Par Value ক্যালকুলেট করার জন্য, “PRICE” ফাংশন ব্যবহার করা যেতে পারে।
  • PRICE ফাংশন বন্ডের মূল্য ক্যালকুলেট করে, যা Par Value ধারণ করে।

উদাহরণ:

A কলামে শেয়ারের নাম, B কলামে Par Value এবং C কলামে বাজার মূল্য ধরা যাক।

C2 কোষে নিম্নলিখিত ফর্মুলা ব্যবহার করে Par Value থেকে বাজার মূল্যের পার্থক্য ক্যালকুলেট করা যেতে পারে:

=C2-B2

এই ফর্মুলা C2 কোষে বাজার মূল্য থেকে B2 কোষে Par Value বিপরীত করে।

Leave a Comment

× বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন